কবিতা পারেনা বদলাতে

সালমা আক্তার মনি ৭ অক্টোবর ২০১৬, শুক্রবার, ০৯:২৬:২৫অপরাহ্ন কবিতা ১৪ মন্তব্য

কিছুই লিখতে পারছি না,
কলমে কালি নেই তাজা রক্তের উল্লাস
আমাকে উপহাস করে ওরা।
নিদারুন বিষন্ন কিছু শব্দ,
খাতার পাতা ছেড়ে,
আমার চারিদিকে ভুতুড়ে নৃত্য করে।
শব্দেরা চিৎকার করে বলে,
কি লিখতে চাও তুমি? কার কথা?
আমি উত্তর দিতে পারিনা।
আমার মানুষ পরিচয়ই বড় বেশি
লজ্জিত করে আমাকে।
আমি ক্ষমা চাই ওই বিষন্ন শব্দের কাছে।
কেননা ওই বিষন্ন শব্দগুলো
একসময় এক একজন মানুষ ছিলো।
কি ভাবছো তুমি!!
ঠা ঠা হাসিতে কানে হাত চাপা দেই
আমরা তো মানুষ না, শুধুই নারী
গাইবান্ধার ছোট্ট তৃষাকে মনে নেই?
কুমিল্লার তনু অথবা চট্টগ্রামের মিতু?
কাকরাইলের ছোট্ট রিশাকে মনে আছে?
মনে আছে তোমার ?
এখনও স্কয়ার হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে লড়ছি আমি খাদিজা, আমরা সবাই নারী!
জন্মই আমাদের আজন্ম পাপ!
জন্মই আমাদের আজন্ম অভিশাপ!
আমাদের বাড়ির বাইরে যেতে নেই!
আমাদের স্কুলে কলেজে যেতে নেই
আমাদের ইচ্ছার প্রকাশ ঘটাতে নেই!
আমাদের ‘স্ব ‘ বলে কিছু থাকতে নেই!
তবে তুমি কি লিখবে কবিতায়?
কার কথা লিখবে? কতজনের?
কি হবে লিখে? কি হবে? কি হবে?
আমাদের নারীত্বই ওদের হাতিয়ার!
মনে নেই রক্ষকের কাছে ধর্ষিত তৃষার
নারীত্বকে ওরা পতিতা আখ্যা দিয়েছে।
মনে নেই নাটকের মেয়ে তনু নষ্টাই ছিল
মনে নেই মিতুর নারীত্বকে কলুষিত করার
কদর্য চেষ্টার কথা মনে নেই?
এখনও তবে কি লিখতে চাও তুমি?
তবে অপেক্ষা করো আরও কিছুক্ষন,
হয়তো জীবন্মৃত হয়ে থাকার চেয়ে
মৃত্যুই ভাল হবে খাদিজার।
তখন লিখো কিছু শোকগাঁথা!
আত্মার শান্তি চেয়ে অমূল্য কিছু
কথা এখনই না হয় ভেবে রাখো।
তারপর অপেক্ষা করো, মানুষের নয়
অন্য কোন নারীর আর্তনাদ শোনার জন্য।
খুব অপেক্ষা করতে হবে না তোমার
রেডি তো হয়েই গেছে
ফজিলাতুন্নেসার পরোয়ানা!
কি সাহস বিচার চাই সে বদরুলের!!
এটুকুও তো প্রাপ্য নয় নারীর।
বিচার, মানবাধিকার এগুলো
সব তোলা থাক মানুষের তরে।
নারী তো মানুষ নয় শুধুই নারী।
তা না হলে তুমি কেন এতো অসহায়!
তুমি কেন কলম হাতে শব্দ হাতড়াও?
কেন তোমার হাতে চাপাতি নেই?
কেন নেই ক্রশফায়ারের অধিকার?
কোপের বদলে কোপ, কিম্বা এনকাউন্টার!
বিচার হীনতার আনন্দযজ্ঞে ওরা বলীয়ান
তোমার অক্ষম কবিতার কি এতই ধার!
একটুও বদলাতে পারে এই পচাঁ ক্ষতের??

৫৯২জন ৫৯২জন
0 Shares

১৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ