খৈয়াছড়া ট্রাজেডি

ফারজানা তৈয়ূব ১৩ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ০৩:৪৬:৪৫অপরাহ্ন কবিতা ১০ মন্তব্য

উচ্ছল তারুণ্য, চঞ্চল চোখ, বন্ধুরা সকলে  মিলে হাসাহাসি, খুনসুটির বুলি

দুষ্ট মিষ্টি কথা চালাচালি, খাবার ভাগাভাগি করে একসাথে চলি।

ছোট্টকালের বন্ধু তারা একা কোথাও না যায়

আজ তাই একত্রে তাদের কবরেও যে হলো ঠাঁই।

গত সপ্তাহে হঠাৎ কোচিং এ বসে করলো প্ল্যান সকলে মিলে

যাবে সকলে খৈয়াছড়া ঝর্ণা দেখতে ২৯ জুলাই সকেলে।

তারপর কত আয়োজন, আলোচনা, ভোজন,শোরগোল, গুঞ্জন

আর কে কে সাথে যাবে চললো তার আয়োজন।

অবশেষে দিন-ক্ষণ হলো ঠিক-ঠাক

শুক্রবার সকালে যাত্রা হবে শুরু

সাথে থাকবে শিক্ষক কয়েকজন পরম গুরু।

বিধি হলো বাম,কে জানতো পরিনাম!!!

ট্রেনে কাটা পরে  এভাবে অসহায় মৃত্যু ভেবেছিলো কি কেউ?

উচ্ছ্বসিত তারুণ্য মুহূর্তে হলো স্তব্ধ

গান,আড্ডা, আনন্দ, কোলাহল এক লহমায় হলো নিস্তব্ধ।

১১ প্রান ঝরে গেলো কে দেবে তার উত্তর

সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মিছিল কে নেবে দায়ভার?

কার গাফলতির এই পরিণাম বিচার বিশ্লেষণ চলছে জোর আলোচনা, সমালোচনা

আড্ডার টেবিলের ঝড় থেমে যাবে, গঠিত হবে তদন্ত কমিটি পর্যালোচনা।

যে স্বজন আজ হারালো প্রিয়জন কালের বিবর্তনে যাবে তারে ভুলে

শুধু মা অপেক্ষায় বসে থাকবে তার নিশি রাতে  দুয়ার খুলে।

৬১৭জন ৪৮৯জন
0 Shares

১০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ