ঈদের দিনের কিছু ঘটনা মেয়ে সম্পৃক্ত সব গুলিই কিন্তু অস্বাভাবিক, আপনি  বর্তমান উঠতি বয়সী ছেলে-মেয়েদের মন মানসিকতা বিচার করতে পারবেন এই ঘটনার প্রেক্ষিতে । এমন ও হতে পারে আমার চেয়ে আপনার অভিজ্ঞটা বেশী ।

ঘটনা- ১ ঃ দুপুরে অটো গাড়িতে যাচ্ছিলাম ছেলে গুলোর বয়স ১২-১৭ হবে , রাস্তার পাশে বা পাশে অতিক্রম কারি কোন মোটর সাইকেল, অটো বা ভেনে কোন মেয়ে পার হতে লাগলে কাছে আশা মাত্র এমন কিছু সব্দ করতে ছিল বা আওয়াজ দিচ্ছিল যা পাসে থেকে সহ্য করাটা দুর্বহ ।

ঘটনা ২ঃ বিল হালতি রাস্ত্রার অপরে মোটামুটি ভালই পানি, সবাই একটু বিনোদনের আশায় হাটছিলেন , মাঝে মাঝে দু একটা মেয়ে ছাড়া সবই ছেলে , মেয়েরা যখন তাদের পাশ দিয়ে যায় তখন তাঁরা জোরে হাঁটে যেন মেয়েটি ভিজে যায়, বাঁকা করে ক্যামেরা ধরে ছবি তোলে । আর অনেক কিছু ।

ঘটনা ৩ ঃ আমরা ফেরার সময় ব্রিজের ওপর আমাদের গাড়িতে একটি মেয়ে উঠে । মেয়েটির সাথে এর কেউ ছিল না । রাস্তায় আসার সময় কয়েক বার জ্যাম এ আটকা পড়ি । ঐ সময় পাশের গাড়িতে থাকা পলাপাইন মেয়েটিকে নিয়ে যেসব আপত্তিকর মন্তব্য করতেছিল , কোন সুস্থ সমাজের মানুষ তা করে না

ঘটনা ৪ঃ আপন কফি হাউস রাত ৯ টা ২ টা মেয়ে বয়স ১৪-১৫ এর বেশী হবে না । কফি হাউজ এ আসছে সাথে কোন ছেলে মানুষ নাই । জেলা শহরের জন্য রাত ৯ টা অনেক কিছু । এদের সাহস তারিফের দাবিদার । এই খানে ভাববেন যে কিছু হয়নাই ।

ঘটনা ৫ ঃ সাহারা প্লাজা , লিফট এ উঠার সিরিয়াল এ ঠেলাঠেলি মেয়ে বা মহিলারা যে লাইন এ পলাপাইন সেই লাইনে । কোন সুন্দর মেয়ে যদি আসছে তাইলে এদের চাপে মেয়ের অভিভাবকরাও পাশে থাকার সুযোগ পায় না ।

আমি এখানে যা লিখলাম এরচেয়ে অনেক বেশী খারাপ কিছু হচ্ছে , যা লিখা সম্ভব হচ্ছে না । এই যে কিছু ঘটনা , বা এই ধরনের ছেলেরা যা করছে অনেক সময় দেখা যায় তাদের চেয়ে ঢের বেশী বয়সী মেয়েদের সাথেও এই আচরণ । এদের দৃষ্টি তে মেয়ে বা মহিলা না তাঁরা “…” ।

কথা হচ্ছে এরা আসলে কি চায় ? এসবের মানে কি ?। আজ থেকে ৫ বছর আগেও এমন খারাপ অবস্থা ছিল না, আজকের অবস্থা বিবেচনায় আগামী ৫ বছর পরে আমার আপনার অধিনস্ত বা কন্যারা রাস্তায়, ওয়ার্কপ্লেচে কতটা নিরাপদ থাকবে আমাদের অবর্তমানে?  বিষয়টা এখানেই বিবেচ্য ।

তবে পরিত্রাণের উপায় যে সহজ তা সকল কেউ স্বীকার করতে হবে । আমি যদি এইখানে সেসব কথা বলি তাহলে আমাকে সুচিল সমাজের কিছু আঁতেল এই ঈদের দিনেও গালি দিতে দ্বিধা করবে না । এত সব কিছুর মাঝেও সবাই ভাল থাক । কুলাঙ্গার নিপাত যাক। আমার বোন নিরাপত্তা পাক ।  প্রত্যাশা এতুকুই ।

 

পোস্টটি  রোজার ঈদের দিন অনেক আক্ষেপ নিয়ে  লিখেছিলাম, ফেচবুক নোট এ সেভ করা ছিল  ।  আজকে এতক্ষণ কাজ করলাম বের হবার পরে ঘুরে এসে জানাব আজ কি দেখালাম আশা করি গত ঈদের দিনের মত কিছু দেখব না)

৫৪৮জন ৫৪৮জন
0 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ