আমি সাধারণ বলে

খাদিজাতুল কুবরা ১৮ জুন ২০২৩, রবিবার, ১১:১০:৩০অপরাহ্ন চিঠি ৪ মন্তব্য

প্রিয় অনিমেষ!

আজ দুপুরে ঝুম বৃষ্টির কবলে পড়ে ভিজে একসা হয়েছি, অথচ তুমি তার কিছুই জানোনা।

কাকভেজা হয়ে একহাঁটু পানি ডিঙিয়ে ঘরে ফিরেছিলাম। ভেজা কাপড় ছেড়ে, নাকে মুখে দুটো গিলে আবার বেরিয়েছি কাজে;এক মাথা মেঘ আর বজ্রপাতের সম্ভাবনা নিয়ে। নাক সিঁটকাচ্ছ নিশ্চয়ই। এমনত বর্ষায় সকলেই করে, এ আর এমন কি! হ্যাঁ এসব নৈমিত্তিক।

কিন্তু আমার প্রাত্যহিক ঝঞ্ঝাটময় জীবনের গল্পগুলো গোঁজামিলে ভরা, এখানে জ্ঞান-বিজ্ঞানের ছোঁয়া নেই, পদোন্নতির ফ্যাসিবাদ নেই। তাই গল্পগুলো যার যার, আমাদের নয়। আজকাল আর বলা হয়না কেমন আছি, কেমন থাকি। চিতা ও আহত হলে গোঙায়, পড়ে থাকে নির্জীব হয়ে। আমি আহত হই তখন,  যখন বুঝতে পারি তুমি আর সে তুমি নেই! বলনা আর যত্ন করে, এই কি হয়েছে তোমার?মন খারাপ কেন? এখন আমার নিঃসঙ্গতায় বিষাদের মৌন রাজত্ব। কাতরাতে থাকি হাঁটুর ব্যাথায়। তা-ও জিরোতে পারিনা, তোমার অভাবে পুড়ে যায় মন। অথচ তোমায় আর বলা হয়না, “মিস করছি ভীষণ!” আমার আঙ্গিনায় দাঁড়িয়ে আছে জরাগ্রস্ত দুঃখ, সে লিখে চলেছে তুমিহীন আমার আলেখ্য! তোমার আছে বুদ্ধের দর্শন, সে তোমায় পথ দেখায় আঁধারের মায়া শেখায়। আমি সাধারণ, খুব সাধারণ।

তোমার জন্য আমার রাত পোহায়না, আঁধার ঘোঁচেনা।

চোখের জল গাল বেয়ে ঝরে পড়ে অঝোরে। তোমার নিরবতা স্বর্ণাভ স্বাক্ষর রাখেনা আমার জীবনে।

আমি সাধারণ বলে, প্রতিদিন মন কাঁদে, ভালোবাস আজো না গিয়েছ ভুলে!

৩৯২জন ২৯০জন
0 Shares

৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ