শাহবাগের কন্যা

শেহজাদ আমান ৯ জুলাই ২০১৫, বৃহস্পতিবার, ০২:১৪:৩৮অপরাহ্ন কবিতা ৮ মন্তব্য

তোমায় দেখেছি শ্রাবণ বা ভাদ্রে
কখনও প্রখর রোদ্রে,
কখনও ঝিরি ঝিরি বৃষ্টিতে
ধ্বংস অথবা সৃষ্টিতে।

দেখেছি তোমায় হয়তোবা,
বর্ষা, শীত অথবা ফাগুণে
শাণিত স্লোগানের আগুন জ্বালা আন্দোলনে।
নতুবা হয়তো –
কতিপয় শুকনো আতেলের সম্মিলনে,
ভাবসর্বস্ব সামাজিকতার মোহাচ্ছনে,
মানুষের লেবাসে কিছু যন্ত্রমানবের মধ্যিখানে
ভেসে যেতে দেখেছি অসামাজিকতার অন্ধটানে।

যেভাবেই তুমি দেখা দাও আমায়,
আমি তোমাকে ছুয়েছি আমারই মানবতায়,
জেনে রেখ তুমি –
আমার নিত্য আগমণ থাকবে তোমারই পাড়ায়।

তোমারই জন্য না আজি
আমি ছেড়ে দিতে রাজি,
আমার বিশ্বাস বা অবিশ্বাস
যদি তুমি দাও আশ্বাস,
তুমি হবে শুধুই আমার
না হয় বিসর্জনই দেব পথ যত মধ্যপন্থার।
খোলসসর্বস্ব মানবতার বুলি না হয় গাইব
তোমার জন্য না হয় অন্তসারশূন্য হয়েই রইব।

মোমবাতি হবে প্রতীক মরণের,
ভাববনা, আমি শিকার কোন চন্দ্রগ্রহণের,
ভুলে যাব দেশ আজ মহাবিশ্ববেহায়ায় পর্যদুস্ত,
আমি শুধু তোমাতে হব চন্দ্রগ্রস্থ।

হে শাহবাগের কন্যা—
ওপেন রিলেশনশীপের খোলা ডাস্টবিন ছেড়ে বরং শুধু আমার হয়ে এসোনা?
শুদ্ধতা, মনুষ্ব্যত্ব আর ভালবাসা হোক আমাদের প্রেরণা।
সত্যি বলছি, করবনা তাহলে এর মত কোন ‘ছাগু সংগীত’ রচনা,
আমি হই তোমার বাসনা, তুমি হও আমার কামনা।

** এই কবিতা আমার ব্যক্তিগত কথামালা নয়; বরং শাহবাগে আসা যাওয়া করা কোন একটি ছেলের, যার কিনা শাহবাগে আসা-যাওয়া করা অন্যদের থেকে চিন্তাধারণা ও আদর্শে বেশ খানিকটা পার্থক্য রয়েছে…।

৪৪৫জন ৪৪৫জন
0 Shares

৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ